নারী পুলিশ নিয়োগে ‘কুমারীত্বে’র পরীক্ষা!

প্রকাশিত: ১:৩৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২২, ২০১৮

ডেস্করিপোর্ট: বিশ্বজুড়ে চলছে বৈষম্য দূরীকরণের প্রয়াস। ঠিক ওই মুহূর্তে ইন্দোনেশিয়ায় নারী পুলিশ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি জনসাধারণের প্রশ্নের মুখে।

সম্প্রতি ইন্দোনেশিয়ার পুলিশ বাহিনীতে নারী সদস্য নিয়োগের জন্য প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় নারীদের ‘টু ফিঙ্গার টেস্ট’ নামের একটি পরীক্ষা দিতে হবে। এই পরীক্ষার মাধ্যমে ওই নারী আসলেই কুমারী কি-না তাই যাচাই করা হবে। পাশপাশি এই নারীদের সুন্দরীও হতে হবে।

অর্থাৎ পুলিশে চাকরি পেতে হলে নারীদের কুমারী এবং সুন্দরী হতে হবে। যোগ্যতাবলে এগিয়ে যাচ্ছে বিশ্বের নারীরা। সে সময় এসে এমন বিজ্ঞপ্তিতে সমালোচনা চলছে ইন্টারনেটেও।

এদিকে, এমন পরীক্ষা চালু করে কঠিন সমালোচনার মুখে পড়েছে সরকার। পুরুষশাসিত সমাজের উৎকৃষ্ট উদাহরণ হয়ে দাঁড়িয়েছে ইন্দোনেশিয়া।

অন্যদিকে ইন্দোনেশিয়ার এমন সিদ্ধান্তে নড়েচড়ে বসেছে মানবাধিকার সংস্থাগুলো।

এ ব্যাপারে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ’র মুখপাত্র আন্দ্রে হারসোন বলছেন, এটা নারী স্বাধীনতা প্রতিষ্ঠায় অন্যতম বাধা।