বৃদ্ধা মায়ের আশ্রয় এখন সুলতানের নৌকার নীচে…

প্রকাশিত: ৭:৩৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০

নিজস্ব সংবাদদাতা, নড়াইল ॥ এক বৃদ্ধা মাকে দেড় বছরের বেশী বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছে তারই জন্মদাতা সন্তান। এ বাড়ি ও বাড়িতে অবস্থানের পর অবশেষে সেই মায়ের আশ্রয় এখন একটি নৌকার নীচে। ঘটনাটি নড়াইলের।

সন্তান বাড়ি থেকে বের করে দেয়ার পর বৃদ্ধা মা এ বাড়ি ও বাড়িতে অবস্থান করেন এবং সর্বশেষ গত ১২দিন বরেণ্য চিত্রশিল্পী এস.এম সুলতান কমপ্লেক্স সংলগ্ন সুলতান ঘাটের ওপর রাখা শিল্পী সুলতানের নৌকার নীচে রোদ-বৃষ্টি উপেক্ষা করে মানবেতন জীবন-যাপন করছেন।

স্থানীয়রা তাকে যখন যে সময় খাবার দিচ্ছেন তাই দিয়ে চলছে তার আহার।

জানা গেছে, নড়াইল শহরের কুরিগ্রাম এলাকার বাসিন্দা মৃত কালিপদ কুন্ডুর স্ত্রী মায়া রাণী কুন্ডুর (৮৫) দুই পুত্র সন্তান দেব কুন্ডু (৫০) এবং উত্তম কুন্ডু (৪০)। উত্তম কয়েক বছর পূর্বে বিবাহ করে অন্যত্র বসবাস করায় শহরের রূপগঞ্জ বাজারের বাঁধাঘাট এলাকার ব্যবসায়ী দেব কুমার মাকে দেখাশোনা করছিল। সম্প্রতি দেড় বছরের বেশী সময় ধরে দেব তার মায়ের সাথে দুর্ব্যবহার শুরু করে এবং খেতে-পরতে এবং থাকতে দিতে অপারগতা প্রকাশ করে মাকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়।

এ সময় স্থানীয় এক ব্যক্তি অমিত সাহা তাকে কয়েক মাস তার নিজের বাড়িতে রাখেন।

বৃদ্ধা মায়া রাণী কুন্ডু কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, দীর্ঘ দেড় বছরের বেশী ছেলে ও ছেলে বৌ তাকে খেতে পরতে ও থাকতে দেয় না। তার ৫শতকের একটি জায়গা ছিল। সে জায়গা কয়েক লাখ বিক্রি করেছে সন্তান দেব কুমার। এখন তারা খুব দুর্ব্যবহার করে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছে। কিছু দিন এখানে ওখানে ছিলাম। এখন আর কোথায় যাওয়ার জায়গা নেই। এ বাড়ি ও বাড়ি গেলে যা খেতে দেয় তাই খাই।

এ ব্যাপারে মায়া রাণীর ছেলে দেব কুন্ডু বলেন, বৌ-এর সাথে বনিবনা হয় তা আমি কি করবো।

জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা বলেন, এ বিষয়টি সম্পর্কে আমাদের জানা নেই। আমরা এখনি ব্যবস্থা নিচ্ছি।